Home ইসলামিক প্রিয় নবী রাসুলুল্লাহ (সা:) উৎসাহ দিয়েছেন যে বিষয়ে

প্রিয় নবী রাসুলুল্লাহ (সা:) উৎসাহ দিয়েছেন যে বিষয়ে

70
SHARE

নিজে উপার্জন করে জীবিকা নির্বাহ করতে ও ভিক্ষাবৃত্তি থেকে দুরে থাকতে এবং দান-খয়রাতের প্রতি উৎসাহ দিয়েছেন। মানবতার মহান মুক্তি দূত, আলোর দিশারী, সর্ব কালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব হযরত মুহাম্মদকে ( সা.) আল্লাহ ছোবাহানাহু তায়ালা বিশ্ববাসীর জন্য রহমত হিসেবে দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন। আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কুরআন শরীফে বলেছেন, তেমাদের জন্য রাসুলের জীবনীর মধ্যে রয়েছে উত্তম আদর্শ । তাঁর প্রতিটি কথা, কাজ, নির্দেশনা, আদেশ, নিষেধ,অনুমোদন ও উপদেশ দুনিয়া ও আখেরাতের কল্যাণের বার্তাবাহী। তিনি গোটা মানব জাতির শিক্ষক। তাঁর সে কালজ্বয়ী আদর্শ ও অমিয়বাণী দ্যুতি ছড়িয়ে পথপ্রদর্শন করেছে যুগ যুগান্তরে, আলোকিত হয়েছে মানবমণ্ডলী।
মহান আল্লাহ ছুবাহানাহুতায়ালা পবিত্র কুরআন মাজিদে সুরা জুময়ার ১৩ নং আয়াত এ উল্লেখ করেছেন “অতঃপর নামাজ শেষ হলে তোমরা দুনিয়ার বুকে ছড়িয়ে পড় এবং আল্লাহর ফজল (জীবীকা) সন্ধান করো”।
প্রথমত : হযরত মিকদাম ইবনে মা’দে কারিবা (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুল (সা.) বলেছেন, নিজ হাতে উপার্জন করে খাওয়ার চেয়ে উত্তম খাবার কেউ কখনো খায়নি।

দ্বিতীয়ত : হযরত আবু হুরাইরা (রা.) বর্ণনায় বলেছেন, রাসুলুল্লাহ (সা. ) বলেন, আল্লাহর নবী দাউদ (আ.) নিজ হাতে উপার্জন করে জীবন ধারণ করতেন। -(বুখারী)

তৃতীয়ত : সাহাবি হযরত আবু হুরাইরা (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ (সা. ) বলেছেন, তোমাদের কারো পিঠে কাঠের বোঝা বয়ে এনে বিক্রি করাটা- কারোর কাছে হাত পাতা, তাকে সে কিছু দিক বা না দিক, তার চেয়ে শ্রেয়তর ।-(বুখারী-মুসলিম)

চতুর্থ : হযরত আবু হুরাইরা (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ (সা. ) বলেছেন, আল্লাহর নবী যাকারিয়া ছিলেন ছুতার মিস্ত্রি ।-(মুসলিম)

পঞ্চমত : সাহাবি হযরত আবু আব্দুল্লাহ যুবাইর ইবনে আওয়াম (রা.) বলেন, রাসুলে আকরাম (সা.) বলেছেন তোমাদের কেউ যদি নিজের রশি নিয়ে বজারে চলে যায়, নিজের পিঠে কাঠের বোঝা বহন করে এনে বাজারে বিক্রি করে এবং তার চেহারাকে আল্লাহর আজাব থেকে বাঁচিয়ে রাখে, তবে এটা তার জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করে বেড়ানোর চেয়ে শ্রেয়তর সেক্ষেত্রে মানুষ তাকে ভিক্ষা দিক বা না দিক ।-(বুখারী)

(ইমাম মুহিউদ্দিন ইয়াহইয়া আন-নববী (রহ.) কতৃক রচিত, হাফেয মুহাম্মদ হাবীবুর রহমান অনুদিত রিয়াদুসসালেহীন গ্রন্থ থেকে সংকলিত)

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here