Home ইসলামিক ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে নিয়োজিত মাটির নীচের গোয়েন্দা আলিমদের কাজের ধরন

ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে নিয়োজিত মাটির নীচের গোয়েন্দা আলিমদের কাজের ধরন

230

ষড়যন্ত্রকারীরা ৯টি স্তরে কাজ করেছে বলে জানা যায়-

১. ব্রিটিশ গোয়েন্দার ডায়েরি বই
২. দৈনিক ইনকিলাবের প্রতিবেদন
৩. প্রচলিত ফিকাহশাস্ত্র
৪. প্রচলিত হাদীসশাস্ত্র এবং
৫. বর্তমান মুসলিমদের জ্ঞান ও আমল
পর্যালোচনা করলে সহজে বুঝা যায়, নয়টি স্তরে কাজ করে ষড়যন্ত্রকারীরা তাদের মিশন সম্পন্ন করেছে।

একটি মিটিং হয়। সেখানে তারা গভীরভাবে চিন্তা করে ৯টি স্তরে মুসলিম জাতিকে ধীরে ধীরে ইসলামের মূল জায়গা হতে সরিয়ে দিতে হবে। স্থর ৯টি হলো-

১. ইসলামী জ্ঞানের উৎসের তালিকা ও নীতিমালায় ভুল ঢুকিয়ে দিতে হবে
২. কুরআনের জ্ঞান থেকে দূরে সরানোর ব্যবস্হা করতে হবে
৩. সুন্নাহর জ্ঞান থেকে দূরে সরানোর ব্যবস্হা করতে হবে
৪. কুরআনের চেয়ে হাদীসকে বেশি গুরুত্ব দেয়ার
ব্যবস্হা করতে হবে
৫. অভিনব পদ্ধতিতে ভুল তথ্য তৈরি করে খাওয়াতে হবে
৬. ভুল তথ্যগুলো ফিকাহ শাস্ত্র ও মাদ্রাসার সিলেবাসে ঢুকিয়ে ব্যাপক প্রচার ও গ্রহণযোগ্যতা পাওয়ার ব্যবস্হা করতে হবে
৭. মাদ্রাসায় সরাসরি কুরআন ও হাদীস পড়ানোর পরিবর্তে ফিকাহশাস্ত্র পড়িয়ে ইসলাম শিখতে বাধ্য ও উৎসাহিত করতে হবে
৮. ফিকাহশাস্ত্রের সংস্করণ বন্ধ করে ঢুকিয়ে দেয়া মিথ্যা কথাগুলোর সংস্কারের পথ বন্ধ করতে হবে
৯. মিথ্যা বা ভুল তথ্যগুলো মুসলিমদের বিনা দ্বিধায় গ্রহন করানোর জন্য অন্ধ অনুসরণ (তাকলীদ) চালু করতে হবে।

তারা যে উল্লেখিত ফর্মুলায় কাজ করেছে তা সত্য হওয়ার প্রমাণ
প্রমাণ-১
ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসার প্রথম ২৬ জন প্রিন্সিপাল (১৮৫০ – ১৯২৭ খৃঃ তথা প্রথম ৭৭ বছর) খ্রিষ্টান ছিল।
১. ড. এ. স্প্রেংগার
২. স্যার উইলিয়াম নাসসান লীজ
৩. মিস্টার জে. স্ট্যাকলিপ
৪. মিস্টার হেনরী ফার্ডিন্যান্ড ব্লকম্যান
৫. মিস্টার এ. ই. গ্যাফ
৬. ড. এ. এফ. আর হর্নেল
৭. মিস্টার এইচ. প্রথেরো
৮. ড. এ. এফ. আর হর্নেল
৯. মিস্টার. এফ. জে. রৌ
১০. ড. এ. এফ. আর হর্নেল
১১. মিস্টার এফ. জে. রৌ
১২. ড. এ. এফ. আর হর্নেল
১৩. মিস্টার এফ. জে. রৌ
১৪. মিস্টার এফ. সি. হিল
১৫. স্যার আর্ল স্টেইন
১৬. মিস্টার এইচ. এ. স্টার্ক
১৭. লে. কর্নেল জি. এম. এ. রেংকিং
১৮. মিস্টার এইচ. এ. স্টার্ক
১৯. স্যার এডওয়ার্ড ড্যানিসন রস
২০. এইচ. ই. স্টেপলটন
২১. স্যার এডওয়ার্ড ড্যানিসন রস
২২. মিস্টার চ্যাপম্যান
২৩. স্যার এডওয়ার্ড ড্যানিসন রস
২৪. মিস্টার আলেকজান্ডার হেমিলটন হার্লী
২৫. মিস্টার এম. জে. বটমলী
২৬. মিস্টার আলেকজান্ডার হেমিলটন হার্লী

কেউ কেউ আমাদেরকে বলার চেষ্টা করেছেন যে, উনারা প্রশাসনিক দায়িত্বে ছিলেন। উনারা অমুসলিম কুরআন-হাদীস জানতেন না। মুসলিম জাতিকে ওরা ধোকা দিয়ে বোকা বানাতে পেরেছে এই কথাটি তার বড় প্রমাণ। ওরা ২৬জন সকলেই ছিলো সেই মাটির নীচের গোয়েন্দা আলিম সেটি বুঝে নিতে হবে ভালো মতো। মুসলিম কান্ট্রিতে ওদের রাষ্ট্রদূতেরা কুরআনের হাফেজ এটাও জানা যায়।
ঘুম ভাঙ্গাতে হবে এ জাতির। আর নয় কাদা ছুড়াছুড়ি। সাথেই থাকুন আগামী পর্বে আরো আসছে।

সুত্রঃ RAF

Facebook Comments